জুন / ২৬ / ২০২২ ০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক:

মে / ১৭ / ২০২২
১২:২০ অপরাহ্ন

আপডেট : জুন / ২৬ / ২০২২
০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

রুস্তমপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিনের ত্রাণ বিতরণ



52

Shares

স্মরনকালের ভয়াবহ বন্যায় পানি বন্ধি হয়ে আছেন রুস্তমপুর ইউনিয়নের লাখো মানুষ। মেঘালয় থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে ইউনিয়নের পুরো এলাকা।শতকরা ৯৮ ভাগ মানুষ এখন পানি বন্ধি।ইউনিয়নের নিন্মঞ্চলের বিভিন্ন গ্রাম সহ ৮০ ভাগ মানুষের ঘরে পানি উঠেছে। তাদের মধ্যে অনেকেই গৃহ ছাড়া, কেউ গাছের ডালে, ঘরের মধ্যে মাচা বেধে, চৌকি কিংবা খাটের উপর, অনেকে নৌকার উপর দিন কাটাচ্ছে। দিন মজুর, শ্রমিক শ্রেণির মানুষদেরকে না খেয়ে থাকতে হচ্ছে। ভয়াবহ বিপদ হয়ে দাড়িয়ে আছে বাচ্ছাদের জন্য।ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে। ঘোর বিপদের সম্মুখীন হয়ে আছেন  প্রত্যেক পরিবার। এমতাবস্থায় ঘরে বসে নেই রুস্তমপুর ইউনিয়নের মানবিক চেয়ারম্যান শাহাব উদ্দিন শিহাব। তরুণ ইউপি সদস্য মুজিবুর রহমান কে নিয়ে তিনি পানি বন্দি মানুষের ঘরে ঘরে গিয়ে খোজ খবর নেন। সিলেট জেলা প্রশাসকে পক্ষ থেকে বন্যার্থদের জন্য মাত্র ২৪ মে.টন চাল বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। ১২ টি ইউনিয়নে বিভক্ত করায় তিনি পেয়েছেন  মাত্র ২ মে.টন চাল।গোয়াইনঘাট উপজেলার সব চেয়ে বড় ইউনিয়ন হিসেবে যদিও  ২ মে.টন চাল পর্যাপ্ত নয় তারপরও ঐ চাল নিয়ে তিনি ছুটে চলেছেন মানুষের দুর্ভোগ দেখতে।গত কাল তিনি মাটিকাপা, টেকনাগুল, ভেড়িবিল, ইটাচকি কান্দি, কাঠালবাড়ি কান্দি, গোজার কান্দি, লামনী হাওর, কুনকিরী, ভৈরবীবস্তি এই সব গ্রামের আংশিক বন্যার্ত অসহায় পরিবারের মধ্যে ত্রান বিতরন করেন। তিনি আশা প্রকাশ করেন ২/১ দিনের মধ্যে মাননীয় মন্ত্রী মহোদয়, জেলা প্রশাসক ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কতৃক পর্যাপ্ত ত্রাণ পাওয়া যাবে এবং তিনি বিভিন্ন গ্রামে হাজির হবেন। এক ফেইসবুক বার্তায় তিনি ইউনিয়নের জন সাধারণকে 

ধৈর্য্য ধরে  মহান আল্লাহর উপর ভরসা রাখার পরামর্শ দেন।তিনি প্রত্যাশা করেন, " ইনশাআল্লাহ অচিরেই এই বিপদ কাঠিয়ে উঠবো আমরা "। ত্রাণ বিতরণে সহায়তা  এবং বন্যার্থ মানুষের পাশে দাড়ানোর জন্য  তিনি বিভিন্ন  গ্রামের যুবক ভাইদেরকে আহবান জানান।

 তিনি প্রকৃত অসহায় পরিবারের সদস্যদের 

 ত্রান বিতরনের সময়  সহযোগিতা করার জন্য সংশ্লিষ্ট এলাকার দায়িত্বশীল, ছাত্র নেতা, যুবক ও শিক্ষিত যুব সমাজকে  অনুরুধ করেন।

বন্যায় ক্ষয় ক্ষতি কমানো ও দুর্যোগ মোকাবেলা করার করতে কিছু সতর্কতা অবলম্বন করার জন্য সবাইকে  অনুরুধ করেন।

★ ঘর বাড়ি পানিতে ডুবে গেলে পাশের আশ্রয় কেন্দ্রে আশ্রয় নেওয়ার পরামর্শ দেন এবং তাকে অবহিত করার জন্য নিন্মোক্ত মোবাইল নাম্বার দেন  ০১৯১৯৫১৫৯৬০

★ গবাদি পশুকে নিরাপদ জায়গায় স্হানান্তরিত করার পরামর্শ দেন। 

★ শিশুদের এবং বৃদ্ধদের বন্যার পানি থেকে দুরে রাখার পরামর্শ দেন 

★নিন্মোক্ত  আশ্রয়কেন্দ্র.. ১. গোজারকান্দি সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ২. বগাইয়া হাওর সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৩. হাদারপার সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়, ৪. বঙ্গবীর উচ্চ বিদ্যালয়, ৫. ভিতরগুল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয়। এই সব কেন্দ্রে জনগণকে  আশ্রয় গ্রহন করার পরামর্শ দেন।

জৈন্তা বার্তা ডেস্ক:

মে / ১৭ / ২০২২
১২:২০ অপরাহ্ন

আপডেট : জুন / ২৬ / ২০২২
০৮:৪০ পূর্বাহ্ন

মফস্বল