মে / ১৭ / ২০২২ ০২:৩৪ অপরাহ্ন

শাবি প্রতিনিধি

জানুয়ারী / ২০ / ২০২২
০৬:১৯ পূর্বাহ্ন

আপডেট : মে / ১৭ / ২০২২
০২:৩৪ অপরাহ্ন

অনশনরত শিক্ষার্থীদের কাছে গেলেন শাবি শিক্ষকরা



75

Shares

উপাচার্যের পদত্যাগের দাবিতে অনশনরত শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শাবিপ্রবি) শিক্ষার্থীদের কাছে গিয়েছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা। বুধবার (১৯ জানুয়ারি) রাত সাড়ে ৮টায় অনশনরত শিক্ষার্থীদের কাছে যান তারা।

এ সময় বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম, শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. তুলসী কুমার দাস, সিন্ডিকেট সদস্য অধ্যাপক মস্তাবুর রহমান, বিভিন্ন অনুষদের ডিন, মেডিক্যাল প্রশাসক অধ্যাপক ড. কবীর হোসেন, বিভিন্ন বিভাগের প্রধান ও শিক্ষকরা উপস্থিত ছিলেন।

তবে শিক্ষকরা কথা বলার চেষ্টা করলেও তাতে সাড়া দেননি অনশনরত শিক্ষার্থীরা। আন্দোলনে একাত্মতা না জানালে কথা বলার সুযোগ দিচ্ছেন না তারা। পৌনে ৯টা থেকে শিক্ষকরা আন্দোলনরতদের উদ্দেশে বক্তব্য দিলেও—শিক্ষার্থীরা তাতে কর্ণপাত না করে বিভিন্ন স্লোগান দিতে থাকেন।

এ সময় সেন্টার অব এক্সিলেন্সের পরিচালক অধ্যাপক মস্তাবুর রহমান অনশনরত শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে বলেন, ‘ক্যাম্পাসে সৃষ্ট পরিস্থিতিতে একটি তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়েছে। এ পরিস্থিতির জন্য যেই জড়িত থাকবে তাকে সাস্ট (শাবিপ্রবি) থেকে চলে যেতে হবে। আমরা অন্যায়ের ক্ষেত্রে কোনো আপস করবে না। আমাদের ছেলেমেয়েদের উপর যে হামলা হয়েছে তার সুষ্ঠু তদন্ত করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। তাতে তোমাদের কাছে একটু সময় এবং প্রধানমন্ত্রীর সহায়তা চাচ্ছি।’

কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক ড. মো. আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘আমরা এ ক্যাম্পাসে কাউকে কোনো ধরনের স্বৈরাচারী আচরণ করতে দেব না। আমরা চাইলে সব পারি—সেটি প্রমাণ করতে চাই। আমরা নতুন একটি ইতিহাস তৈরি করে সম্মিলিত চেষ্টায় এ বিশ্ববিদ্যালয়কে এগিয়ে নিয়ে যেতে চাই।’

শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে তিনি আরও বলেন, ‘অতীতে আমাদের অনেক ভুল হয়েছে। আমরা আর ভুল করতে চাই না। তোমাদের সব দাবি মেনে নিয়ে আমরা আবারও একত্রিত হতে চাই।  যদি ভিসি গুলি চালানোর নির্দেশ দিয়ে থাকেন তাহলে মহামান্য রাষ্ট্রপতি ব্যবস্থা নিবেন। যদি আমি নিজেও অপরাধ করি তাহলে তার বিচার হবে।’

কোষাধ্যক্ষ বলেন, ‘সেদিন তোমাদের দাবির সমাধান হয়ে গিয়েছিল, শুধু ঘোষণাটা বাকি ছিল। কেন হঠাৎ এমন হয়ে গেল তা আমরা বের করে যথাযথ ব্যবস্থা নেব বলে তোমাদের কথা দিচ্ছি। তোমরা আমাদের কথা বলার একটু সুযোগ দাও।’

এর আগে বুধবার (১৯ জানুয়ারি) বেলা ৩টা থেকে উপাচার্য অধ্যাপক ফরিদ উদ্দিন আহমেদের পদত্যাগের দাবিতে আমরণ অনশন কর্মসূচি শুরু করেন শিক্ষার্থীরা। ২৪ জন শিক্ষার্থী এ অনশন শুরু করেন। এর মধ্যে ১৫ জন ছেলে এবং ৯ জন মেয়ে রয়েছেন।

শাবি প্রতিনিধি

জানুয়ারী / ২০ / ২০২২
০৬:১৯ পূর্বাহ্ন

আপডেট : মে / ১৭ / ২০২২
০২:৩৪ অপরাহ্ন

শিক্ষা ও সংস্কৃতি