জুলাই / ২৫ / ২০২১ ০৯:০০ অপরাহ্ন

সৈয়দ হেলাল আহমদ বাদশা, গোয়াইনঘাট

জুন / ০৯ / ২০২১
০৫:৪২ অপরাহ্ন

আপডেট : জুলাই / ২৫ / ২০২১
০৯:০০ অপরাহ্ন

ক্ষমা চেয়ে জামিনে মুক্তি পেলেন গোয়াইনঘাটের রাশেদ আলম রাজ্জাক



1574

Shares

প্রবাসীকল্যাণমন্ত্রী ইমরান আহমদ এমপি, গোয়াইনঘাট উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ ফারুক আহমদ এবং উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমানসহ বিশিষ্ট ব্যাক্তিদের নামে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মানহানিকর ও ভাবমূর্তি ক্ষুণœ করার উদ্দেশ্যে মন্তব্য করার দায়ে ডিজিটাল আইনের মামলায় জেলে যান রাশেদ আলম রাজ্জাক (৩৫)।

৩৪ দিন পর আপোষ-মীমাংসার মাধ্যমে শর্ত সাপেক্ষে মঙ্গলবার সে জামিনে মুক্তিলাভ করে। বুধবার (৯ জুন) বিকাল ৩ টায় উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ফারুক আহমদ ও উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমান'র কার্যালয়ে নিজ মা-বাবাকে সাথে নিয়ে এসে ক্ষমা চাইলেন রাশেদ আলম রাজ্জাক এবং আর জীবনে কখনো কারো প্রতি এইরকম বিরূপ মন্তব্য করবে না-এই মর্মে সে অঙ্গীকার করে।

বুধবার বিকাল ৩টা ৩০ মিনিটে সে তার নিজের ফেসবুক আইডিতে নিজের ভুল বুঝতে পেরে ক্ষমা প্রার্থনামূলক একটি স্ট্যাটাসও দেয়। মামলাটি এখনোও চলমান আছে, শর্তসাপেক্ষে সে জামিনে মুক্তি লাভ করেছে।

উল্লেখ্য, গত ৫ মে ওই যুবকের বিরুদ্ধে গোয়াইনঘাট উপজেলা শ্রমিকলীগের সাধারণ সম্পাদক শাহীন আহমদ বাদী হয়ে তথ্যপ্রযুক্তির ডিজিটাল আইনে থানায় একটি মামলা দায়ের করেন (মামলা নং-০৪, তারিখ: ০৪/০৫/২০২১ইং)।

সৈয়দ হেলাল আহমদ বাদশা, গোয়াইনঘাট

জুন / ০৯ / ২০২১
০৫:৪২ অপরাহ্ন

আপডেট : জুলাই / ২৫ / ২০২১
০৯:০০ অপরাহ্ন

মফস্বল