জুন / ২৬ / ২০২২ ০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি

মে / ১৭ / ২০২২
০৩:০০ অপরাহ্ন

আপডেট : জুন / ২৬ / ২০২২
০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

জৈন্তাপুর ইউনিয়নে চেয়ারম্যান ফখরুলের ত্রানতৎপরতা অব্যাহত



82

Shares

 ভয়াবহ বন্যা ও পাহাড়ি ঢলে পানিবন্ধী হয়ে আছেন জৈন্তাপুর উপজেলার ২ নং জৈন্তাপুর ইউনিয়নের শতকরা ৯০ ভাগ মানুষ। মেঘালয় থেকে নেমে আসা পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে গেছে ইউনিয়নের প্রায় পুরো এলাকা।শতকরা প্রায় ৭০ ভাগ মানুষের ঘরে পানি ঢুকে পড়েছে । ইউনিয়নের নিন্মঞ্চলের বিভিন্ন গ্রাম বিচ্ছিন্ন দ্বীপে পরিনত হয়েছ । ঘরে পানি ঢুকে পড়ায় দিন মজুর, শ্রমিক শ্রেণির মানুষদেরকে না খেয়ে থাকতে হচ্ছে।এমতাবস্থায় জৈন্তাপুর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম গত তিন দিন থেকে তার ব্যক্তিগত পক্ষ থেকে পানি বন্ধি মানুষের মধ্যে শুকনো খাবার ও নগদ টাকা বিতরণ করছেন। ইউনিয়ন পরিষদের সকল সদস্যদের নিয়ে চেয়ারম্যান ফখরুল পানি বন্ধী মানুষের মধ্যে ত্রাণ দিয়ে যাচ্ছেন। এসময় জৈন্তাপুর উপজেলা পরিষদ এর চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি কামাল আহমদ সহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। চেয়ারম্যান ফখরুল ইসলাম জৈন্তাবার্তা কে জানান উপজেলার মধ্যে তার ইউনিয়নের লোকজন সবচেয়ে বেশী ক্ষতি গ্রস্থ। সরকারি ভাবে ৭ মে. টন চাল বরাদ্ধ হলেও তা এখনো উত্তোলন করা হয়নি কারণ এই চাল নেওয়ার জন্য লোকজন আসতে পারতেছে না। পানি কমলে তা বন্টন করা হবে। তিনি বলেন এই মুহূর্তে শুকনো খাবারের খুব বেশি প্রয়োজন। তিনি আরো বলেন মাননীয় মন্ত্রী ইমরান আহমদ সরকারি কাজে দেশের বাহিরে থাকলেও সার্বক্ষণিক খোজখবর নিচ্ছেন। জৈন্তাপুর ইউনিয়ন কে বন্যাদুর্গত এলাকা ঘোষণা করে অবিলম্বে সকল প্রকার সহযোগিতার জন্য সরকারের প্রতি আহবান জানান।

জৈন্তাপুর প্রতিনিধি

মে / ১৭ / ২০২২
০৩:০০ অপরাহ্ন

আপডেট : জুন / ২৬ / ২০২২
০৮:৪৯ পূর্বাহ্ন

মফস্বল