জানুয়ারী / ২০ / ২০২২ ০২:২৮ অপরাহ্ন

মোহাম্মদ আফজল

জানুয়ারী / ১৪ / ২০২২
১০:৪৭ অপরাহ্ন

আপডেট : জানুয়ারী / ২০ / ২০২২
০২:২৮ অপরাহ্ন

এ্যাপোল-১১ ক্লাবের কাছে পাত্তাই পেল না অনির্বাণ ক্রীড়া চক্র



22

Shares

এবারের সিলেট প্রথম বিভাগ ক্রিকেট লীগে সবচেয়ে বড় অঘটন ঘটিয়েছে ক্লেমন সুরমা ক্রিকেট একাডেমির প্রশিক্ষনার্থীদের নিয়ে গড়া ক্লাব এ্যাপোল-১১। শুক্রবার (১৪ জানুয়ারি) “পেনহিল লজিষ্টিকস লিমিটেড ১ম বিভাগ ক্রিকেট লীগ ২০২১-২০২২’’ এর ২৬তম ম্যাচে তারা ৬ উইকেটে হারিয়েছে সিলেট বিভাগীয় দলের তারকা দুই ক্রিকেটার সাহানুর ও ইমরান আলী এনামদের নিয়ে গড়া অনির্বাণ ক্রীড়া চক্রকে। সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ব্যাটে-বলে একচ্ছত্র আধিপত্য বিস্তার করেছে এ্যাপোলো-১১ ক্লাব। অনির্বাণ ক্রীড়া চক্রের ময়নুল ও সাহানুর ছাড়া আর কেউ দাঁড়াতেই পারেননি এ্যাপোলো-১১'র বোলার সুজন, শাহান ও আসাদের সামনে। সুজন-আসাদরা বল হাতে বল হাতে অনির্বাণ ক্রীড়া চক্রকে গুড়িয়ে দেন মাত্র ১১৪ রানে। আর সেই রান এ্যাপোল-১১ টপকে যায় মাত্র ১৯.৪ ওভারে। ব্যাট হাতে অনির্বাণের উপর তান্ডব চালান এ্যাপোল-১১'র ব্যাটসম্যান ইরফান, এই ব্যাটসম্যান ৩৩ বলে খেলেন ৪৮ রানের ঝড় ইনিংস। ফলে ৬ উইকেট হাতে রেখে কুড়ি ওভার শেষ হওয়ার আগেই জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে এ্যাপোল-১১।

অনির্বাণ ক্রীড়া চক্র টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে সুজন ও আসাদের বোলিং তোপে ৩৮ রান তুলতেই প্রথম ৪ উইকেট হারায় অনির্বাণ ক্রীড়া চক্র। পঞ্চম উইকেটে ময়নুল ও সাহানুর ৪৬ রান যোগ করলে শুরুর সেই বিপর্যয় কাটিয়ে উঠে অনির্বাণ। ইনিংসের ১৯তম ওভারে ময়নুলকে এলবিডব্লিউর ফাঁদে ফেলে সেই জুটি ভাঙেন সুজন। এরপর আর বড় কোন জুটি গড়তে পারেনি অনির্বাণ। দলীয় ৮৪ রানে ময়নুল ফিরেন ব্যক্তিগত ৪৩ রান করে। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারাতে থাকে অনির্বাণ ক্রীড়া চক্র। ফলে ৩০.১ ওভারে অলআউট হয় ১১৪ রানে। এ্যাপোল-১১ ক্লাবের হয়ে সুজন ৩২ রানে শিকার করেন ৪ উইকেট। এছাড়া শাহান ও আসাদ ২ টি করে উইকেট করে লাভ করেন।

জবাবে ১১৫ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে এ্যাপোল-১১ ক্লাবের দুই ওপেনার রাজু ও ইরফান ৬.৩ ওভারে  উদ্বোধনীয় জুটিতে তুলেন ৪৪ রান। উইকেটে থিতু হতে থাকা ওপেনার রাজুকে ব্যক্তিগত ১৬ রানে ফিরিয়ে এই জুটি ভাঙেন তুষার। ফলে ৪৪ রানে প্রথম উইকেট হারায় এ্যাপোল-১১। ইনিংসের দশম ওভারে দ্বিতীয় উইকেট হারায় এ্যাপোল-১১ ক্লাব। দলীয় ৬৫ রানে শাহানকে ফিরিয়ে অনির্বাণকে দ্রুত আরও একটি উইকেট এনে দেন অমিত।

এ্যাপোল-১১ ক্লাবের ওপেনার ইরফান ক্রিজে দ্রুত রান তুলতে থাকেন, ব্যাট হাতে তিনি রীতিমতো তান্ডব চালিয়েছেন বলা যায়। ইনিংসের ১২তম ওভারে তার সেই তান্ডব থামান অনির্বাণের বোলার অমিত। অমিতের বলে সরাসরি বোল্ড হয়ে ব্যক্তিগত ৪৮ রান করে সাজঘরে ফিরেন ইরফান। ৩৩ বলে তার এই ৪৮ রানের ইনিংসটি সাজান সাতটি চার ও দুটি ছয়ে। এরপর দলীয় ১০৯ রানে আরও একটা উইকেট হারায় এ্যাপোল-১১।

ব্যক্তিগত ১৫ রানে অপরাজিত ইনিংস খেলে জয় নিয়ে মাঠ ছাড়েন মিনহাজ। তার সাথে ৫ রানে অপরাজিত ছিলেন অনিক। অনির্বাণ ক্রীড়া চক্রের পক্ষে অমিত ২ উইকেট লাভ করেন। ঘন কুয়াশার কারণে খেলা দেরিতে শুরু হওয়ায় ওভার কার্টল করে ৪৮ ওভার করা হয়।  বল হাতে ৪ উইকেট শিকার করে ম্যাচ সেরা হয়েছেন এ্যাপোল-১১ ক্লাবের খেলোয়াড় সুজন। খেলা শেষে তার হাতে ম্যাচ সেরার পুরস্কার তুলে দেন সিলেট বিভাগীয় দলের সাবেক কৃতি ক্রিকেটার গোলাম মাওলা তুষার।

শনিবার সকাল ৯টায় সিলেট জেলা স্টেডিয়ামে মুখোমুখি হবে বীর বিক্রম ইয়ামিন ক্রীড়া চক্র ও মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব। প্রতিদিন মাঠে এসে খেলা উপভোগ করার জন্য সিলেটের সর্বস্তরের জনসাধারণের প্রতি বিশেষভাবে আহবান জানিয়েছেন সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহি উদ্দিন আহমদ সেলিম এবং ১ম বিভাগ ক্রিকেট লীগ কমিটির সভাপতি আব্দুর রকিব ও সম্পাদক এটিএম ইকরাম।

মোহাম্মদ আফজল

জানুয়ারী / ১৪ / ২০২২
১০:৪৭ অপরাহ্ন

আপডেট : জানুয়ারী / ২০ / ২০২২
০২:২৮ অপরাহ্ন

খেলা