১৪ এপ্রিল ২০২১ ১১:১০ পূর্বাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
১৪ এপ্রিল ২০২১   |  ই-পেপার   |   English
উল্টো মাথায় জগৎ দেখার ৪৪ বছর
উল্টো মাথায় জগৎ দেখার ৪৪ বছর

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

মার্চ ২৯, ২০২১ ০৮:৫৬ এএম
সংগৃহিত ছবি



চিকিৎসকরা উল্টো মাথা নিয়ে জন্ম নেয়ার পর বলেছিলেন বেঁচে থাকবেন মাত্র ২৪ ঘণ্টা। কিন্তু চিকিৎসকদের ভবিষ্যদ্বাণীকে মিথ্যা প্রমাণ করে দিব্যি চলাফেরা করছেন ব্রাজিলের উত্তর-পূর্বের রাজ্য বাহিয়ার বাসিন্দা ক্লোদিও ভিইরা ডি অলিভিয়েরা । তার বয়স এখন তাঁর ৪৪ বছর। 

দেখুন ভিডিওতে " রাখে আল্লাহ মারে কে "

বিরল আর্থ্রোগ্রিপোসিস মাল্টিপ্লেক্স কনজেনাইটা নামক রোগে আক্রান্ত তিনি। এর ফলে জন্ম থেকেই উল্টো দিকে মুখ নিয়েই পৃথিবীর আলো দেখতে হচ্ছে তাকে। জন্মানোর পরই চিকিৎসকরা জানিয়েছিলেন যে তাঁর বেঁচে থাকার আশা মাত্র চব্বিশ ঘণ্টা। কিন্তু ডাক্তারদের সেই আশঙ্কাকে মিথ্যা প্রমাণ করে পেছনের দিকে মাথা নিয়ে কাটিয়ে দিয়েছেন জীবনের ৪৪টা বছর। আর এভাবেই আরো অনেক বসন্ত দেখে যাওয়ার ইচ্ছা প্রকাশ করেছেন ক্লোদিও ভিইরা ডি অলিভিয়েরা।

একটি আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমের প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, জন্ম থেকেই বিরল এই রোগের শিকার তিনি। যার ফলে তাঁর মাথা পেছন দিকে ঘোরানো এবং পা গুলি বুকের সঙ্গে আটকে রয়েছে। যার ফলে গোটা দুনিয়াকেই  উল্টোভাবে দেখেন তিনি। তবে এর জন্য তাঁর কোনো শারীরিক সমস্যা হয় না। এমনকি খাবার খেতে বা নিঃশ্বাস নিতেও কোনো রকম সমস্যায় পড়তে হয় না তাঁকে।

এ বিষয়ে ব্রাজিলের নিউজ সাইট ‘জি১’-কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ক্লোদিও বলেছেন, 'জন্ম থেকেই এই শারীরিক প্রতিবন্ধকতা থাকলেও এর জন্য তাঁর কোনো সমস্যা হয় না। ঘরে বসেই মায়ের কাছে যাবতীয় পড়াশোনাও শিখে ফেলেছেন তিনি। এমনকি প্রতিবন্ধী মানুষদের অনুপ্রেরণা দিতে বা তাদের নানা রকম কাজে উদ্বুদ্ধ করতে তিনি একটি আত্মজীবনীও লিখে ফেলেছেন। ২০০০ সাল থেকে তিনি একটি ডিভিডি প্রকাশ করেছেন। এমনকি বিভিন্ন সময় তাকে বক্তৃতা দিতেও শোনা যায়।'

সূত্র - কালের কন্ঠ 

 

News Desk