১৯ জানুয়ারী ২০২১ ০২:৩৮ পূর্বাহ্ন     |    ই-পেপার     |     English
১৯ জানুয়ারী ২০২১   |  ই-পেপার   |   English
ছাতকে মেয়র প্রার্থী ন্যান্সি'র সমর্থনে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত
ছাতকে মেয়র প্রার্থী ন্যান্সি'র সমর্থনে নির্বাচনী সভা অনুষ্ঠিত

ছাতক প্রতিনিধি

জানুয়ারী ১৪, ২০২১ ১২:০৪ এএম

ছাতকে নির্বাচনী সভায় বিএনপি মনোনীত মেয়র প্রার্থী রাশিদা আহমদ ন্যান্সি তার বক্তব্যে বলেছেন, নির্বাচিত হলে তিনি ছাতক পৌরসভাকে একটি মডেল পৌরসভায় উন্নীত করবেন। এ পৌরসভায় ভালো ড্রেনেজ ব্যবস্থা, লাইটিং ও বিশুদ্ধ পানি সরবারাহের কোনো ব্যবস্থা নেই।রাস্তাঘাটের বেহাল অবস্থা। যেখানে সেখানে ময়লা-আবর্জনার স্তূপ, বর্ষার সময় কর্দমাক্ত রাস্তায় হাটা চলা করতে পারেনা মানুষ। খেয়াঘাটগুলোতে নেই কোনো সিড়ির ব্যবস্থা। এসব বিষয় উল্লেখ করে রাশিদা আহমদ ন্যান্সি আরো বলেন, পৌরসভার মানুষ ভ্যাট-ট্যাক্স দিলেও রয়েছেন উন্নয়ন বঞ্চিত। বর্তমান মেয়র ও তার পরিবার পৌরবাসীকে শাসন করছে এক যুগেরও অধিক সময় ধরে। মানুষের ব্যবসা-বাণিজ্য, পদ-পদবী সব কেড়ে নিয়েছে মেয়র পরিবার। এ পরিবারের যাতাকলে পিষ্ঠ পৌরবাসীকে মুক্ত করতে হবে। পৌরবাসীর মুক্তির জন্য ১৬ জানুয়ারির নির্বাচনে ধানের শীষে ভোট প্রদানের জন্য তিনি পৌরসভার সর্বসাধারণের প্রতি আহবান জানিয়েছেন।

বুধবার সন্ধ্যায় শহরের কাস্টম রোডে পৌর বিএনপির আহবায়ক আলহাজ্ব সৈয়দ তিতুমীরের সভাপতিত্বে ও পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক শামছুর রহমান বাবুলের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত বিশাল নির্বাচনী সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক, সাবেক এমপি, সুনামগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি কলিম উদ্দিন আহমদ মিলন বলেন, যারা পৌরসভাকে ভাগ-বাটোয়ারা করে নিয়েছে ছাতকের মানুষ এখন তাদের কবল থেকে মুক্তি চায়। ১৬ জানুয়ারি ধানের শীষ প্রতীকে ভোট বিপ্লব ঘটিয়ে এ জিম্মিদশা থেকে মুক্ত হবেন পৌরবাসী।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে বিএনপির কেন্দ্রীয় নির্বাহী কমিটির সদস্য, সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান চৌধুরী বলেন, ৩০০ টাকা পারিশ্রমিকে ওয়ার্কার পাওয়া গেলেও ভোট পাওয়া যায়না। যারা ছাতকে ওয়ার্কার প্রথা চালু করে এবং চাদাবাজি শুরু করে ছাতককে কলংকিত করেছে এই নির্বাচনে জনগণ তাদের ভোট দিবেনা। যারা বলেছেন দু'খেলোয়াড় খেলা জুড়তে পারেনি তাদের উদ্দেশ্যে মিজান বলেন, আপনারা দেখেন ছাতক পৌরসভায় খেলা শুরু হয়ে গেছে। ১৬ জানুয়ারির ফাইনাল খেলায় ধানের শীষই বিজয়ী হবে।

 

সভায় আরো বক্তব্য রাখেন, ছাতক উপজেলা বিএনপি'র আহবায়ক ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি ফারুক আহমদ, সাবেক চেয়ারম্যান ও জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি শামছুল হক নমু, জেলা বিএনপির সহ-সভাপতি আব্দুর রহমান, জেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক, সাবেক চেয়ারম্যান নিজাম উদ্দিন, নজরুল ইসলাম, আবু হুরায়রা ছুরত, দোয়ারা উপজেলা বিএনপি'র সাবেক আহবায়ক ও সাবেক চেয়ারম্যান শাহজাহান মাস্টার, জেলা বিএনপির তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক সম্পাদক শামছুর রহমান শামছু, ছাতক উপজেলা বিএনপি'র যুগ্ম আহবায়ক হিফজুল বারী শিমুল, পৌর বিএনপির যুগ্ম আহবায়ক জয়নাল আবেদীন মহি, উপজেলা শ্রমিকদলের সাধারণ সম্পাদক শফি উদ্দিন প্রমুখ। সভার শুরুতে পবিত্র কোরআন তেলাওয়াত করেন হাফিজ আলী হোসেন। সভায় আলতাফুর রহমান খছরু, ফজলুল করিম বকুল, আবু সুফিয়ান, ইমরান আহমদ, হাজী আব্দুল বারী, কয়েছ আহমদ, ইমতিয়াজ আলী, জাহেদুল ইসলাম আহবাব, মনির উদ্দিন মেম্বার, হাজী রুহুল আমিন, কুতুব উদ্দিন, মানিক মিয়া, তাজুল ইসলাম, মোশারফ হোসেন, সোনা মিয়া, বাচ্চু মিয়া, ফরিদ আহমদ, সাজ্জাদ হোসাইন, আলী আশরাফ তাহিদ, ইউসুফ আলী, কবির আহমদ, আনোয়ার হোসেন, মাস্টার ছমরু মিয়া, আলী হোসেন মানিক, সাদেক আলম, কামরুল ইসলাম জাহেদ, মাস্টার ইয়াকুব আলী, সুলেমান মিয়া, আজর আলী মেম্বার, আবুল কালাম, আবুল ফজল, আব্দুল কাদির, আয়েজুর রহমান আয়েছ, কবিরুল হাসান আঙ্গুর, আশরাফুর রহমান খেলন, বাকি বিল্লাহ, মুরাদ আহমদ, সদরুল আমিন সোহান, গোলাম হোসেন সাকিল, লিজন তালুকদার, আব্দুল কাইয়ূম, মতিউর রহমান, আলাল আহমদ, জয়নাল আবেদীন রফিক, তারেক আহমদ, আবুল হোসেন, রাসেল মাহমুদ, সেবুল আহমদ, আব্দুল মুনিম মামনুন, ইজাজুল হক রনি, সৈয়দ মেহেদী, সাচ্ছা আবেদীন সহ বিএনপি যুবদল, শ্রমিকদল, কৃষকদল ও ছাত্রদলের নেতৃবৃন্দ ছাড়াও পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডের সর্বস্তরের জনসাধারণ উপস্থিত ছিলেন। সভার আগে শহরে রাশিদা আহমদ ন্যান্সি'র সমর্থনে এক বিশাল প্রচার মিছিল অনুষ্ঠিত হয়।##

এন/সি